যৌনসম্পর্ক ঠিক রাখতে যে খাবারগুলো এড়িয়ে চলবেন

amitumi_avoid food for sexual life

স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক বজায় রাখা আবশ্যক। সুস্থভাবে বেঁচে থাকতে গেলে ও হাসিখুশি থাকতে গেলে স্বাস্থ্যকর যৌনজীবন একান্তভাবে প্রয়োজনীয়। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, নিয়মিত ভালোবাসায় লিপ্ত হওয়া স্বামী-স্ত্রীরা অন্যদের চেয়ে শারীরিক ও মানসিকভাবে অনেক বেশি সতেজ থাকেন। আর সেটার পিছনে অন্যতম বড় ভূমিকা থাকে খাবারের।

সেটাও বারবার করে মনে করিয়ে দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। এখনকার ব্যস্ত জীবনযাত্রায় অনেক কম বয়সেই নানা যৌনরোগ বা সমস্যা বাসা বাঁধছে। চিকিৎসকদের কথায় তার অন্যতম কারণ কিন্তু আমাদের খাদ্যাভ্যাস। সঠিক খাবার না খেলে ভালোবাসার বন্ধন আলগা হতে খুব একটা বেশি সময় লাগবে না। তাই সুস্থ যৌনজীবনের স্বার্থে কোন খাবারগুলি এড়িয়ে চলাই মঙ্গল তা দেখে নিন।

১) ফ্রেঞ্চ ফ্রাই: এর মধ্য রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ট্রান্স ফ্যাট। খুব তাড়াতাড়ি এই খাবার পেট খারাপ করে ও স্থূলত্ব বাড়িয়ে দেয়। একইসঙ্গে ভালোবাসার চাহিদাকে কমিয়ে দেয় এমন খাবার।

২) আইসক্রিম: আইসক্রিম সকলেরই প্রিয়। তবে এতে চিনি ও কৃত্তিম মিষ্টত্ব অনেক বেশি থাকে। এটি বেশি খেলে স্বামী-স্ত্রীর ভালোবাসায় ব্যাঘাত ঘটে।

৩) সোডা: অনেকে ভাবেন ডায়েট সোডা হয়ত অনেক বেশি ভালো। তবে তা নয়। স্বামী-স্ত্রীর ভালোবাসার অন্যতম বড় শত্রুও বলা যেতে পারে একে।

৪) বার্গার ও হট ডগ: সপ্তাহান্তে নানা ফুড কর্নারে গিয়ে বার্গার, হচ ডগের মতো নানা খাবারে আমরা কামড় বসাই। তবে অনেকেই জানেন না, এর মধ্যের প্রসেসড মাংসে এমন উপাদান রয়েছে যা যৌন উত্তেজক হরমোনকে দুর্বল করে দেয়। বিশেষ করে পুরুষদের ক্ষেত্রে টেস্টোস্টেরন হরমোন যা ভালোবাসার অনুঘটক হরমোন রূপে কাজ করে, তাকে কমিয়ে দেয়। এর চেয়ে মাছ বা বাজারের কেনা মাংস খাওয়া অনেক ভালো।

৫) পাস্তা: পাস্তা খেলে শরীরে গ্লুকোজ ও ফ্যাটের মাত্রা অনেক বেড়ে যায়। ফলে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের সময়ে আপনার উত্তেজনার মাত্রা অনেক কম থাকে।

৬) অ্যালকোহল ও মিক্সড ড্রিঙ্কস: অ্যালকোহল শরীরের জন্য যেমন খারাপ তেমনই ভালোবাসা কমানোর ক্ষেত্রেও অন্যতম বড় অনুঘটক। রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে ভালোবাসার ইচ্ছাকেই শেষ করে দেয় অ্যালকোহল জাতীয় পানীয়।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail