প্রথম প্রেমে ধাক্কা খাওয়া মেয়েরা যে ধরনের পুরুষকে খোঁজে!

amitumi_what girls want in second love

জীবনের প্রথম প্রেম তা তো অন্যরকম। জীবনের সবচেয়ে সুন্দর অভিজ্ঞতা। তার সঙ্গে কোনো কিছুর তুলনাই চলে না। তবে সত্যি বলতে কি, প্রথম প্রেম মোটেও আহামরি কিছু নয়।

বরং বলা যায় সবচেয়ে গুরুত্বহীন। একটা বয়সে আমরা সবাই প্রেমে পড়তে উদগ্রীব থাকি। তখনই হুটহাট প্রেমটা হয়ে যায়। সত্যি বলতে পৃথিবীর বেশির ভাগ মানুষের প্রথম প্রেমটা কিন্তু সফল হয় না। সেটা খুবই স্বাভাবিক। প্রথম প্রেমটা হয় বেশির ভাগ মানুষের জন্যই একটা বিশেষ শিক্ষা। মেয়েরা প্রথম প্রেমে ধাক্কা খেয়ে অনেক কিছু শিখে। তবে প্রেমে ধাক্কা খেয়ে মেয়েরা রুচিশীল পুরুষকেই স্বামী হিসেবে বেছে নিতে চায়।

১) প্রথম প্রেমেই বেশি ঘনিষ্ঠ হতে নেই : প্রথম প্রেমের ভুল থেকে মেয়েরা সবার আগে এটাই শেখে। প্রথম প্রেম যেহেতু ব্যর্থ হবার সম্ভাবনাই বেশি থাকে, তাই বেশি ঘনিষ্ঠ হওয়া সবচেয়ে বড় ভুল, যার জন্য আজীবন পস্তাতে হতে পারে।

২) বিয়ে করতে হয় তাকেই, যে সন্তান ভালোবাসে : যে পুরুষ সন্তান ভালোবাসে না, তার সঙ্গে প্রেম করেও লাভ নেই। কেননা সেই প্রেম কখনো বিয়ের দিকে যাবে না। সন্তান ভালোবাসেন না যে পুরুষরা, তারা বিয়েতেও আগ্রহী হন না সাধারণত।

৩) দেখতে সুন্দর হলেই ‘ভালো’ মানুষ হয় না : প্রথম প্রেমে মানুষের চেহারা বা বাহ্যিক সৌন্দর্যটাই সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করে থাকে। একটি ছেলে কেবল দেখতে সুন্দর, পেশীবহুল বা ওয়েল ড্রেসড- এটুকুর মানেই যে সে ভালো ও যোগ্য মানুষ, এই ধারণাটা মেয়েদের প্রথম প্রেমের পরেই ভাঙে।

৪) পুরুষের সবচেয়ে বড় সৌন্দর্য তার ব্যক্তিত্ব ও বুদ্ধিমত্তা : একজন বুদ্ধিমান মানুষ মাত্রই তার নিজস্ব একটি ব্যক্তিত্ব থাকবে। ব্যক্তিত্ববান ও রুচিশীল পুরুষ হচ্ছেন আদর্শ প্রেমিক ও স্বামী।

৫) আসলে আমি কেমন প্রেমিক চান : প্রথম প্রেমটা মানুষের ভুলই হয়ে থাকে। এই ভুলটা করেই মেয়েরা বুঝতে পারে যে আসলে কেমন স্বামী বা প্রেমিক চাই তার।

৬) অশিক্ষিত পুরুষদের থেকে দূরে থাকাই শ্রেয় : যে পুরুষ বই পড়ে না বা যার পড়াশোনা নিয়ে আগ্রহ নেই- এমন পুরুষ যে প্রেমিক বা স্বামী হিসেবে মোটেও সুখকর নন, সেটা বুদ্ধিমতী মেয়েরা প্রথম প্রেমের পরেই বুঝে নেয়।

৭) বিয়ে তাকেই করতে হবে, যিনি আজীবনের সঙ্গিনী চান : বিয়ে কোনো ছেলেখেলা নয়। প্রেম-প্রেম খেলে বেড়ানো ছেলেরা মূলত চরিত্রহীন হয়। যিনি আসলেই বিয়ে করে সংসার পাততে চান, এমন মানসিকতার পুরুষের সঙ্গেই প্রেম করা উচিত।

৮) মন তাকেই দিতে হবে, যে মনকে যত্নে রাখবে : যাকে তাকে মন দিলে কি হবে? মন তাকেই দিতে হবে, যে মনকে যত্নে রাখবে।

৯) কীভাবে ঝগড়া করতে হবে : আর কিছু হোক বা না হোক, কীভাবে ঝগড়ার সময় কৌশলী হতে হবে সেটা প্রথম প্রেমে মেয়েরা ভালোই শিখে ফেলে।

১০) ভালো তাকেই বাসা উচিত, যিনি ভালোবাসতে জানেন : ভালোবাসা একটি সম্পূর্ণ দু’তরফা ব্যাপার। এটা তখনই সুন্দর যখন দু’জন মানুষ পরস্পরকে সমান ভালোবাসেন। এক তরফা ভালোবাসা কষ্ট ছাড়া কিছুই দেয় না।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail