ত্বকের তৈলাক্ততা কমাতে ৮টি প্রাকৃতিক উপায়

amitumi_get oil free skin naturally

গরমে তৈলাক্ত ত্বকের তৈলাক্ততা আরো বেড়ে যায়। ফলে ব্রণও বাড়ে। দূর করার জন্য প্রাকৃতিক উপাদানই সবচেয়ে উপযোগী—জানালেন রূপবিশেষজ্ঞ আমিনা হক

লেবু

দ্রুত ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করতে লেবু কার্যকর। সরাসরি ত্বকে লেবু ব্যবহার করা উচিত নয়। লেবুর সাইট্রিক এসিড ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। লেবুর রসের সঙ্গে ময়দা মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

দুধ

তুলায় দুধ ভিজিয়ে নিয়ম করে প্রতিদিন দুবার ত্বকে ব্যবহার করলে ভালো ফল পাওয়া যাবে। দুধের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে নিলে ত্বক পরিষ্কারও হবে।

কমলা

কমলার রস মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এতে তৈলাক্ত ভাবও অনেকটা কমে যাবে।

শসা ও দই

শসা ব্লেন্ড করে টক দই মিশিয়ে নিন ভালোভাবে। এরপর ১০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। এটা তৈলাক্ত ত্বকে একই সঙ্গে ক্লিনজার ও টোনারের ভূমিকা পালন করবে।

গোলাপের পাপড়ি

গোলাপের পাপড়ি ১ কাপ, গোলাপজল দেড় কাপ একসঙ্গে সিদ্ধ করে নিন। এরপর ভালোভাবে ছেঁকে তাতে অ্যালোভেরার নির্যাস মিশিয়ে রাখুন। তৈলাক্ত ত্বকে ব্যবহার করুন। ময়েশ্চারাইজারের কাজ করবে।

নিম

তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণের সমস্যা দূর করতে নিম ভালো প্রতিষেধক। সিদ্ধ নিমপাতা থেঁতো করে পুরো মুখে লাগিয়ে রাখুন আধা ঘণ্টা। এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

চন্দন ও হলুদ

চন্দন ১ চা চামচ ও হলুদের গুঁড়া ১ চা চামচ একসঙ্গে লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। এরপর প্যাকটি মুখে লাগিয়ে রাখুন ১০ থেকে ১৫ মিনিট। ত্বক থেকে তৈলাক্তভাব দূর করার পাশাপাশি ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনবে।

টমেটো ও মধু

টমেটো রস ২ টেবিল চামচ ও মধু ১ চা চামচ একসঙ্গে মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। মুখে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। এই পেস্টটি তৈলাক্ত ভাব কমাবে এবং ত্বকের মরা চামড়া দূর করবে।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail