একজন আর্দশ বাবার মধ্যে যে ৫টি গুণ থাকে

amitumi_qualities of an ideal father

“বাবা” একজন মেয়ে সন্তানের প্রথম ভালোবাসা এবং ছেলে সন্তানের প্রথম হিরো হয়ে থাকে। সন্তানের ভবিষ্যৎ, সুনিশ্চিত জীবন একজন বাবার উপর নির্ভর করে। মানুষ হিসেবে প্রতিটি সন্তানের রোল মডেল থাকে একজন বাবা। বাবাকে অনুসরণ করে বড় হয় প্রতিটি সন্তান। তাই প্রতিটি বাবার লক্ষ্য থাকে একজন ভালো আর্দশ মানুষ হওয়ার। একজন আর্দশ বাবার মধ্যে কিছু বৈশিষ্ট্য বিদ্যমান থাকে। যা তাকে তার সন্তানের কাছে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ বাবা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে।

১। সন্তানের সাথে সময় কাটান

কর্মব্যস্ততার কারণে বাবারা সন্তানকে বেশি সময় দিতে পারেন না। তবে সন্তানকে সময় দেওয়া প্রতিটি বাবার কর্তব্য। যত ব্যস্ত থাকুন না কেন দিনের কিছুটা সময় সন্তানের জন্য রেখে দিন। এটি আপনার সাথে সন্তানের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরি করবে। সন্তানের সাথে খেলা করেন, গল্প করতে পারেন অথবা তাকে নিয়ে কোথাও থেকে ঘুরে আসতে পারেন। এই কাজটি আপনাদের মধ্যে দূরত্ব দূর করে একটি সুন্দর সম্পর্ক তৈরি করতে সাহায্য করবে।

২। সন্তানের গায়ে হাত তুলবেন না

সন্তানের গায়ে ভুলেও হাত তুলবেন না। অনেক সময় বাবারা সন্তানের গায়ে হাত তুলে থাকেন। এটি সন্তানের মাঝে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। সন্তান ভুল করতে পারে, তাকে সেটি বুঝিয়ে বলুন। মারধর কোন সমস্যার সমাধান হতে পারে না। নিজের রাগকে নিয়ন্ত্রণ রাখার চেষ্টা করুন। কারণ আপনার রাগ তার মনে ভয় তৈরি করবে। সে আপনাকে সম্মান করার পরিবর্তে ভয় পাবে।

৩। সত্য বলুন

বাবারা অনেক সময় সন্তানকে খুশি করার জন্য মিথ্যা বলে থাকেন। এই ছোট ছোট মিথ্যাগুলো সন্তানের মনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। আপনার সন্তানের প্রশ্নে সত্য উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করুন। মিথ্যা আশ্বাস দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। আপনার মিথ্যা বলা দেখে সে মিথ্যা কথা বলা শিখবে।

৪। ভাল মানুষ হওয়ার চেষ্টা করুন

আপনার সন্তান ভাল, খারাপ সব কিছু আপনার কাছ থেকে শিক্ষা পাবে। তাই একজন ভাল মানুষ হওয়া অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সন্তানের সামনে এমন কোন কিছু করবেন না যাসন্তানের মনে আপনার সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা সৃষ্টি করে। দাম্পত্য কোলহল থেকে সন্তানকে সবসময় দূরে রাখুন।

৫। প্রশংসা করুন

প্রশংসা প্রতিটি মানুষ পছন্দ করে। আপনার বাচ্চাটিও এর ব্যতিক্রম নয়। তার ভাল কাজগুলোর প্রশংসা করুন। তা সে যত ছোট কাজই হোক না কেন। এই ছোট ছোট প্রশংসাগুলো তাকে ভাল কাজ করার অনুপ্রেরণা দিবে। ঠিক তেমনি অন্যায় বা ভুলে তাকে শাসন করুন, বুঝিয়ে বলুন।

সন্তান লালন পালন পৃথিবীর সবচেয়ে কঠিন, চ্যালেঞ্জিং এবং আনন্দদায়ক কাজ। একটি সন্তানকে সঠিকভাবে লালন পালন করে মানুষ করে তোলা বেশ কঠিন। আর এই কঠিন কাজটি একজন বাবাকে সাবধানে করতে হয়। তার একটি ছোট ভুল নষ্ট করে দিতে পারে সন্তানের সাথে সম্পর্ক। মনে রাখবেন একজন বাবা হতে পারে সন্তানের শ্রেষ্ঠ বন্ধু।

facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail